সোমবার, ২৫ মে, ২০২০

ঈদুল ফিতরের স্ট্যাটাস ২০২০

এই মহামারীর কালে ঈদ অবশ্যই আনন্দের কিছু নয়। কিন্তু আমার জন্য যেনো আরও বিষাদময়।

এই জীবনে প্রথমবারের মতো আব্বা-আম্মাকে বাদ দিয়ে ঈদ-উল-ফিতরের দিন কাটাচ্ছি। ভেবেছিলাম শ্বশুর বাড়িতে দিনটা কোনভাবে কাটিয়ে দিবো। ভোরবেলায় জানা গেলো গত রাতেই পাশের বিল্ডিং এ করোনায় একজন মৃত্যুবরণ করেছেন। ফলে এই বাড়িতে যাওয়ার পথটাও বন্ধ হলো। বাধ্য হয়ে নিজেরাই ঈদ উদযাপনের চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ার বাড়বাড়ন্তের এই যুগেও আমরা একটু স্পর্শ, একটু মোলাকাতের কাঙ্গাল - করোনা তাই বুঝিয়ে দিচ্ছে।

বিষাদগ্রস্থ মন থেকে আপনাদের জানাই ঈদের শুভেচ্ছা। আপনাদের ঈদ আমার ঈদের তুলনায় ভালো কাটুক - ঈদ মোবারক।

রবিবার, ১০ মে, ২০২০

বিস্মৃত গোয়েন্দা দীপক চ্যাটার্জী

ভারতখ্যাত গোয়েন্দা। কোন কেসের সমাধান করতে দেরী লাগে না। গাড়ি চালাতে পারেন খুব দ্রুত। কোমড়ে গুঁজে রাখেন রিভলবার, অন্ধকারে লক্ষ্যভেদ করেন অব্যার্থ। সকালে খালি পেটে কফি না খেলে মাথা খোলে না। ঝুঁকিপূর্ণ কাজেই তার আগ্রহ, মৃত্যুকে উপেক্ষা করে ঝাঁপিয়ে পড়েন রহস্য সমাধানে। ছুটে বেড়ান বাংলা থেকে বার্মা পর্যন্ত। সহকারী একজন থাকলেও তার সহযোহিতা নেন কদাচিৎ। কে তিনি?

পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি বিখ্যাত প্রাইভেট ডিটেকটিভ দীপক চ্যাটার্জীর সাথে। পঞ্চাশের দশকে বাংলার পাঠকদের মাঝে জনপ্রিয় ছিলেন দীপক চ্যাটার্জী। অবশ্য পরবর্তীতে কিরিটি রায়, ব্যোমকেশ বক্সী, ফেলুদার মতো প্রখর মস্তিষ্কের গোয়েন্দাদের কারণে বাজার হারান তিনি, হারিয়ে যান কালের অতলে। সম্প্রতি তার সেইসব দুঃসাহসিক অভিযানগুলোকে আবার সম্মুখে নিয়ে আসা হয়েছে।