সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

নবাব এলএলবি চলচ্চিত্রে পুলিশকে হেয় করার অভিযোগে পরিচালক ও অভিনেতাকে গ্রেফতার প্রসঙ্গে

অনন্য মামুনের পরিচালনায় শাকিব খান ও স্পর্শিয়া অভিনীত সিনেমা 'নবাব এলএলবি' মুক্তি পেয়েছে সম্প্রতি। মুক্তির পর ‘নবাব এলএলবি’ ছবিতে পুলিশকে বিকৃতভাবে উপস্থাপনের অভিযোগে গত ২৪/১২/২০২০ তারিখ মধ্যরাতে পরিচালক অনন্য মামুনকে এবং নির্দিষ্ট দৃশ্যে পুলিশ চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অভিনেতা শাহীন মৃধাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরবর্তীতে পর্নোগ্রাফি মামলায় তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। পুলিশের এই ভূমিকা নিয়ে সর্বত্র বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচুর সমালোচনা হচ্ছে। সিনেমায় পুলিশের উপস্থাপন এবং পরিচালক-অভিনেতার গ্রেফতার বিষয়ে কিছু কথা বলা প্রয়োজন।

শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০

গল্প: ভদ্রতার খাতিরে

আমাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু শিমুল সদ্য বিয়ে করে ছোট্ট বাসায় সংসার পেতেছে। কদিন আগে আমরা দশ-বারোজন বন্ধু-বান্ধব সদলবলে তার বাসায় গিয়ে হাজির হলাম। মুরগির রোস্ট-গরু-পোলাও দিয়ে পেট ভরে খাওয়ানোর পর বন্ধু-পত্নী সবাইকে ছোট ছোট বাটিতে করে রসমালাই খেতে দিয়েছে। নতুন সংসারে চা চামচ বোধহয় বেশী নেই, একটা বাটিতে কাটা চামচ দিয়েছে রসমালাই খাওয়ার জন্য, সেটা আবার আমার ভাগেই পড়ল।

শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০

বই পড়া: গবেষণায় হাতেখড়ি

গবেষণায় আমরা কেউই কম যাই না, সমাজে যখন কোন ঘটনা ঘটে যায়, তখন আমরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ‘গবেষণা’ শুরু করে দেই। তবে, এই গবেষণা যে আত্মম্ভরি ছাড়া আর কোন ফল বয়ে আনে না, তার বুঝ আমাদের হয় না। তবে, এ দেশের কিছু মেধাবী ছেলে-মেয়ে সত্যিই গবেষণা করতে চায়। তারা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে উন্নত দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়াশোনা করতে আগ্রহী। কিন্তু প্রয়োজনীয় রিসোর্সের অভাবে শুরুটা তাদের জন্য বেশ কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। ‘গবেষণায় হাতেখড়ি’ বইটি মূলত তাদের উদ্দেশ্য করেই লেখা।

সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিশ্ব পর্যটন দিবসে ‘গ্রাম’ ভাবনা

আজ বিশ্ব পর্যটন দিবস। এ বছরের প্রতিপাদ্য হলো, ‘গ্রামীণ উন্নয়নে পর্যটন’। প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি এ উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন।

করোনা মহামারির এই ক্রান্তিকালেও বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে দিবসটি বিভিন্ন উপায়ে পালন করা হচ্ছে। এ কথা কে না জানে, করোনার কারণে বিশ্বের সবচেয়ে বিপর্যস্ত শিল্পগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো পর্যটন শিল্প। করোনাত্তোরকালে এই শিল্পকে কীভাবে দ্রুততম উপায়ে পুনরুজ্জীবিত করা সম্ভব সে বিষয়ে নানা রকম গবেষণা-চিন্তাভাবনা চলছে।

শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রাজশাহী-নাটোরে (নাটোর পর্ব)

ইচ্ছে ছিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ যাবো। সেখানে আছে ছোট সোনা মসজিদ এবং আরও কিছু প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা। একটি স্থলবন্দর। বছর কয়েক আগে আমি আর মাহদী ঢাকা থেকে পালিয়ে চাঁপাই-রাজশাহী-নাটোর বেড়িয়ে গিয়েছিলাম। পরিবারকেও এই সকল স্থাপনা দেখিয়ে আনার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু পরিকল্পনার ভুলে তা সম্ভব হলো না। রাজশাহী থেকে চাঁপাইয়ের সরাসরি বাস সার্ভিস বলতে কিছু নেই। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নাইটকোচগুলো ভোরবেলায় রাজশাহী থেকে যাত্রী নেয় বটে, অত সকালে বাচ্চাকাচ্চা নিয়ে উপস্থিত হওয়া ঝামেলা। লোকাল সার্ভিসে দুই ঘন্টার রাস্তা চার ঘন্টা লাগতে পারে। তাছাড়া চাঁপাইতে হোটেল রুম না নিলে প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণ করা, বাচ্চার খাওয়া-দাওয়া ইত্যাদি বেশ কষ্টকর হয়ে যাবে। সুতরাং উত্তম বিকল্প হিসেবে নাটোর-কেই বেছে নিতে হলো।

শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০

রাজশাহীর খাবার

কোথাও বেড়াতে গেলে সেখানকার স্থানীয় এবং জনপ্রিয় খাবার চেখে দেখতে হবে - এই ব্যাপারটা আমার মাথায় ঢুকিয়েছে মঈন। মঈন আমার ইউনিভার্সিটির বিশেষ প্রিয় ছোটভাই। সে ভ্রমণপিপাসু এবং ভ্রমণ সাহিত্যের পাঠক। তার সাথে আমার কয়েকটি ভ্রমণ অভিজ্ঞতা রয়েছে বটে, সেগুলো বড় দলের একজন সদস্য হিসেবে। এই ধরণের ভ্রমণে পরস্পরকে ভালোভাবে জানার, নানা বিষয়ে আলাপ আলোচনার সুযোগ কম থাকে। কেবল বেড়ানোর উদ্দেশ্যে ভ্রমণে মঈনকে পাইনি। দাপ্তরিক প্রয়োজনে একবার মঈনের সাথে কুষ্টিয়া-রাজশাহী ভ্রমণ করার সুযোগ হয়েছিল, তখনই মঈনের খাদ্যপ্রীতি সম্পর্কে জানতে পারি।

শনিবার, ২২ আগস্ট, ২০২০

রাজশাহী-নাটোরে (রাজশাহী পর্ব)

আমার দীর্ঘদিনের সাথী ছোটভাই দুর্ধর্ষ শোয়াইব সৈনিক অবশেষে সৈনিক জীবন ত্যাগ করে পারিবারিক জীবনে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। এজন্য অবশ্য তার প্রস্তুতিও ব্যাপক। প্রথমে সে নামের শেষ থেকে 'সৈনিক' ছাটাই করেছে। তারপর চেহারায় নিরীহ জেন্টলম্যান ছাপ বসানোর জন্য কালো ফ্রেমের চশমা পড়া শুরু করেছে এবং সর্বশেষ, রিজিকের উৎস পালটে নিয়েছে। খোদা তায়ালা তার এই স্বেচ্ছা পরিবর্তনে সন্তুষ্ট হয়েছেন এবং পারিবারিক জীবন শুরু করার জন্য একটি চমৎকার এবং উপযুক্ত তরুণীকে শোয়াইবের রিজিকে যুক্ত করার জন্য সন্ধান দিয়েছেন। তাকে নিয়ে আসার জন্যই সদলবলে যেতে হবে রাজশাহীতে।

শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০

ষাঁড়ের লড়াই

আগামীকাল ঈদ। সবুজ ঘাসে মোড়ানো বড় মাঠে ঘুরে ঘুরে ঘাস খাচ্ছে কোরবানী উপলক্ষে কেনা বারো-তেরোটা গরু। তাদের গলার দড়ি ধরে রাখালের দায়িত্ব পালন করছে আট-বারো বছরের অনেকগুলো শিশু-কিশোর। দূরে দাড়িয়ে আছে তাদের বাবারা, খেয়াল রাখছেন গরু এবং তাদের সন্তানদের দিকে। হঠাৎ দূর থেকে ভেসে আসতে শুরু করলো ব্যান্ড পার্টির ড্রাম আর বিউগলের আওয়াজ, সাথে মিছিলের স্লোগান। গরুর দড়ি ছেড়ে দিয়ে সকল শিশু-কিশোর ছুটে পেরিয়ে গেল মাঠ, উপস্থিত হলো বড় রাস্তার পাশে। এ পথ দিয়েই যাবে বিজয় মিছিল!

বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০

মথুরাপুর দেউল

বিভিন্ন উদ্দেশ্যে বেশ কয়েকবার ফরিদপুর যাওয়া হলেও বেড়ানোর সুযোগ হয়নি। এটা নিয়ে একটা আফসোস ছিল। আফসোস কমেছে ২০১৮ সালে অফিসের কাজেই ফরিদপুরে আসার পর পল্লী কবি জসিমউদদীনের বাড়িতে ঝটিকা ভ্রমণের পর। তাই এবারও যখন ফরিদপুর যাবো বলে ঠিক হলো, তখন থেকেই পরিকল্পনা করলাম - যদি সময়ের আগেই কাজ শেষ করতে পারি তাহলে ফরিদপুরের আরও কিছু স্থাপনা ঘুরে দেখবো। দেখার মধ্যে আছে - সাতৈর মসজিদ, পাতরাইল মসজিদ, জগদ্বন্ধু সুন্দর-এর আশ্রম, নদী গবেষনা ইনস্টিটিউট আর মথুরাপুর দেউল।

শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০

আলাস্কার নীলরঙা ম্যাজিক বাস

গাছের আড়াল থেকে বের হয়েই পরিত্যক্ত বাসটা চোখে পড়ল তার। শিকারি বন্দুকটা কাঁধে ঝুলিয়ে নিল। বাসের আশেপাশের জায়গাটা পরিষ্কার, জানে এরকম খোলা জায়গায় লুকাবে না মুজটা। তখনই গন্ধটা নাকে এলো - কিছু একটা পঁচেছে। বাসের মধ্যে কিছু পাওয়া যায় কিনা দেখতে গিয়ে লাশটা আবিষ্কার করলো শিকারি লোকটা - অল্প বয়সী একটি ছেলে, সম্ভবত খেতে না পেয়ে মারা গেছে। বাসটা ভালো করে দেখে নিল সে, ১৪২ নাম্বার। লোকেশনটা নোট করে নিল, লাশটা উদ্ধারে কাজে লাগবে। তারপর ফিরে চলল মুজ হান্টার। সময়টা সেপ্টেম্বর, ১৯৯২।

সোমবার, ৬ জুলাই, ২০২০

ক্রাইম কাহিনীর কালক্রান্তি: গোয়েন্দা সাহিত্যের সুলুকসন্ধান

সাহিত্যে অপরাধ কাহিনি বর্তমান সময়ে খুব গুরুত্বপূর্ণ শাখা। সারা বিশ্বেই এ ধরনের সাহিত্যের আলাদা পাঠক আছে। সাধারণত কোন ক্রাইম সংঘটন এবং তার রহস্য উদঘাটন ও অপরাধীকে শাস্তি প্রদান এ ধরনের সাহিত্যের মূল বিষয়বস্তু। গোয়েন্দা কাহিনিও এ কারণে এই শাখার অন্তর্ভূক্ত। ঠিক কবে থেকে এ ধরনের সাহিত্যের শুরু, সারা দুনিয়ায় এ ধরনের সাহিত্যগুলো কারা রচনা করেছেন, তাদের সেই রচনাগুলোতে নতুনত্ব কিছু ছিল কিনা ইত্যাদি বিষয়ে সুলুক সন্ধান করেছেন সুকুমার সেন, বইয়ের নাম ‘ক্রাইম কাহিনীর কালক্রান্তি’।

সোমবার, ২৫ মে, ২০২০

ঈদুল ফিতরের স্ট্যাটাস ২০২০

এই মহামারীর কালে ঈদ অবশ্যই আনন্দের কিছু নয়। কিন্তু আমার জন্য যেনো আরও বিষাদময়।

এই জীবনে প্রথমবারের মতো আব্বা-আম্মাকে বাদ দিয়ে ঈদ-উল-ফিতরের দিন কাটাচ্ছি। ভেবেছিলাম শ্বশুর বাড়িতে দিনটা কোনভাবে কাটিয়ে দিবো। ভোরবেলায় জানা গেলো গত রাতেই পাশের বিল্ডিং এ করোনায় একজন মৃত্যুবরণ করেছেন। ফলে এই বাড়িতে যাওয়ার পথটাও বন্ধ হলো। বাধ্য হয়ে নিজেরাই ঈদ উদযাপনের চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ার বাড়বাড়ন্তের এই যুগেও আমরা একটু স্পর্শ, একটু মোলাকাতের কাঙ্গাল - করোনা তাই বুঝিয়ে দিচ্ছে।

বিষাদগ্রস্থ মন থেকে আপনাদের জানাই ঈদের শুভেচ্ছা। আপনাদের ঈদ আমার ঈদের তুলনায় ভালো কাটুক - ঈদ মোবারক।

রবিবার, ১০ মে, ২০২০

বিস্মৃত গোয়েন্দা দীপক চ্যাটার্জী

ভারতখ্যাত গোয়েন্দা। কোন কেসের সমাধান করতে দেরী লাগে না। গাড়ি চালাতে পারেন খুব দ্রুত। কোমড়ে গুঁজে রাখেন রিভলবার, অন্ধকারে লক্ষ্যভেদ করেন অব্যার্থ। সকালে খালি পেটে কফি না খেলে মাথা খোলে না। ঝুঁকিপূর্ণ কাজেই তার আগ্রহ, মৃত্যুকে উপেক্ষা করে ঝাঁপিয়ে পড়েন রহস্য সমাধানে। ছুটে বেড়ান বাংলা থেকে বার্মা পর্যন্ত। সহকারী একজন থাকলেও তার সহযোহিতা নেন কদাচিৎ। কে তিনি?

পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি বিখ্যাত প্রাইভেট ডিটেকটিভ দীপক চ্যাটার্জীর সাথে। পঞ্চাশের দশকে বাংলার পাঠকদের মাঝে জনপ্রিয় ছিলেন দীপক চ্যাটার্জী। অবশ্য পরবর্তীতে কিরিটি রায়, ব্যোমকেশ বক্সী, ফেলুদার মতো প্রখর মস্তিষ্কের গোয়েন্দাদের কারণে বাজার হারান তিনি, হারিয়ে যান কালের অতলে। সম্প্রতি তার সেইসব দুঃসাহসিক অভিযানগুলোকে আবার সম্মুখে নিয়ে আসা হয়েছে।

বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০

3:10 To Yuma বনাম 3:10 To Yuma

বেন ওয়েড নামের কুখ্যাত গ্যাংস্টার এবং তার গ্যাং এর স্টেজকোচ ডাকাতির চাক্ষুষ সাক্ষী হলেন বৃষ্টিহীন খরা আর দারিদ্র‍্যের কষাঘাতে জর্জরিত র‍্যাঞ্চার ড্যান ইভান্স। বেন ধরা পড়লে টাকার বিনিময়ে পরের দিনের ৩টা ১০ এর ইউমাগামী ট্রেনে তুলে দেয়ার দায়িত্ব নেয় ড্যান। আর বেনকে ছিনিয়ে নেয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা শুরু করে তার দল, তাদের নেতৃত্বে আছে চার্লি। এই হলো ৩:১০ টু ইউমা ছবির গল্প।

রবিবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২০

The Physician: মধ্যযুগের চিকিৎসা বিজ্ঞান, ধর্ম বিষয়ক কল্পকাহিনী

সারা বিশ্ব করোনা মহামারিতে আক্রান্ত। দেড় লক্ষেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে এই মহামারিতে। এখন পর্যন্ত এর কোন চিকিৎসা আবিস্কৃত হয়নি। করোনা মহামারি থেকে মুক্তির জন্য আইসোলেশন বা সেল্ফ কোয়ারেন্টাইন-কেই একমাত্র উপায় হিসেবে দেখা হচ্ছে। এই কোয়ারেন্টাইন-এর সাথে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ দার্শনিক ও চিকিৎসক ইবনে সিনার নাম উচ্চারিত হচ্ছে। বলা হচ্ছে, তিনিই সর্বপ্রথম কোয়ারেন্টাইন বা অসুস্থ্য ব্যক্তিকে সকলের থেকে আলাদা করে রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন। সত্যি মিথ্যা জানি না, ইতিহাসবিদরা সে বিষয়ে গবেষণা ও তর্ক-বিতর্ক করবেন, তবে করোনা মহামারির আবির্ভাবের বেশ আগেই ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা 'দ্য ফিজিশিয়ান'-এ ইবনে সিনা-কে বলতে দেখা যায়, "নগরের অভ্যন্তরে একজন প্লেগ রোগী মারা গিয়েছে। আমাদের এখনই নগর খালি করে দেয়া উচিত।"

শনিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২০

মারিও পূজোর উপন্যাস থেকে দ্য সিসিলিয়ান

সিনেমাপ্রেমীরা মারিও পূজো-কে চিনেন গডফাদার ট্রিলজির স্রষ্টা হিসেবে। বইপ্রেমীরা গডফাদার ছাড়াও দ্য লাস্ট ডন, দ্য সিসিলিয়ান, দ্য ফ্যামিলি ইত্যাদি বইয়ের জন্যও মারিও পূজো-কে ভালোবাসেন। গডফাদার ছাড়াও তার আরও কিছু উপন্যাস ও গল্প অবলম্বনে সিনেমা নির্মিত হলেও ওগুলো গডফাদারের মতো নাম কামাতে পারেনি। দ্য সিসিলিয়ান সেরকমই একটি।

শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২০

কালো বেড়াল, সাদা বেড়াল

পশ্চিমবঙ্গের খ্যাতিমান সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় কিছু রহস্য ও থ্রিলার গল্পও লিখেছেন। বিশেষ করে তার লালবাজারের সরকারী গোয়েন্দা শবর দাশগুপ্ত ইদানিং বেশ পরিচিতি পেয়েছেন। শবরের গোয়েন্দাগিরির উপর নির্ভর করে তিনটি সিনেমার মুক্তি এই পরিচিতির প্রধান কারণ। গোয়েন্দা শবর দাশগুপ্তের সাথে যারা বহু আগে থেকেই পরিচিত তারা আরও কিছু রহস্য-থ্রিলার গল্পের নামও জানেন। বিকেলের মৃত্যু, কালো বেড়াল সাদা বেড়াল ইত্যাদি। শীর্ষেন্দুর যাবতীয় রহস্য-থ্রিলার গল্পের মধ্যে কালো বেড়াল, সাদা বেড়াল আমার সবচেয়ে পছন্দের।

শনিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২০

বিরক্তিকর 'আসছে আবার শবর'

লালবাজারের গোয়েন্দা শবর দাশগুপ্ত তৃতীয়বারের মতো বড় পর্দায় হাজির হয়েছেন, এ কারণে এবারে ছবির নাম 'আসছে আবার শবর'। যথারীতি শ্বাশত চট্টোপাধ্যায় আছেন শবরের রূপে, পরিচালনায় আরিন্দম শীল। 

শবর পুলিশের গোয়েন্দা, প্রাইভেট ডিটেকটিভ নন। শবরকে যে কেসগুলোর সমাধান করতে হয় সেগুলো আবার বড়দের, ফলে প্রাপ্তবয়স্ক বিষয়াদি ঘুরে ফিরে আসে, তবে সেটা যদি মাত্রাতিরিক্ত হয় তাহলে কিন্তু বিরক্তির উদ্রেক হবেই। তৃতীয়বার হাজির হয়ে গোয়েন্দা শবর যতটা তৃপ্ত করেছে, 'আসছে আবার শবর' দিয়ে অরিন্দম শীল ততটাই বিরক্ত করেছেন।

শুক্রবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২০

চিড়িয়াখানায় যা দেখা গেল

ঘোড়ার খাঁচার সামনে দাঁড়িয়ে রোদ পোহাচ্ছি। ঘোড়াগুলো হাতের নাগালেই ঘুরছে। কেউ কেউ হাত বাড়িয়ে ছুঁয়েও দিচ্ছেন। একটা লোক খাঁচার পেছন দিক থেকে দেয়াল টপকে খাঁচায় ঢুকলো, হাতে একটা বস্তা। চিড়িয়াখানার কর্মচারী, হয়তো খাবার দিবে বা অন্য কিছু - ধারণা করলাম। কিন্তু লোকটা বস্তা হাতে নিয়ে খাঁচার ভেতর দিয়ে দৌড়ে সামনের দিকে চলে এলো। তারপর দেয়ালে চড়ে বসল এবং হাতের বস্তাটি টেনে তুলল। এ পাশে নেমে যখন ভীড়ের মধ্যে মিশে যাচ্ছিল তখন দেখলাম -তার বস্তা থেকে কাপড়ের তৈরী কতগুলো পুতুল উঁকি দিচ্ছে। বুঝলাম - লোকটি চিড়িয়াখানার ভেতরের অন্যান্য পুতুল বিক্রেতাদের মতই একজন।

সোমবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২০

শীতের পাখির সাথে কুমিল্লায়

গোড়ালি সমান পানিতে দাঁড়িয়ে তিনি অত্যন্ত যত্নের সাথে অযু করছিলেন। মাথা মাসেহ শেষ করে তিনি পা ধুলেন। তারপর কালেমায়ে শাহাদাত পড়ার জন্য ডানহাতের তর্জনী তুলে আকাশের দিকে তাকিয়ে বললেন, 'সুবহানাল্লাহ!' 

আমি উনার  ঠিক পেছনে দাঁড়িয়ে জামার হাতা গুটিয়ে নিচ্ছিলাম। কালেমায়ে শাহাদাতের  পরিবর্তে 'সুবহানাল্লাহ' শুনে আকাশের দিকে তাকালাম। শত শত বালিহাঁস আকাশে  উড়ে বেড়াচ্ছে আর ডাকছে। তারা চক্রাকারে উড়ছে। কিছু হাঁস পুকুরের  উত্তর-পূর্ব দিকের বাঁশঝাড়ে গিয়ে বসছে। আবার সেখান থেকে কিছু হাঁস উড়ে গিয়ে ঝাঁকের সাথে যোগ দিচ্ছে৷ সে এক অভূতপূর্ব দৃশ্য!