মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

গাধার প্রস্রাবে পিপঁড়ার ভেসে যাওয়ার গল্প

সপ্তাহ দেড়েক আগে - চুল কাটানোর জন্য সেলুনে বসেছি। একে সক্কালবেলা, তার উপর আমিই প্রথম কাস্টমার। সেলুনে তখন 'ওয়াজ' পিরিয়ড চলছে। ওয়াজ শেষে হিন্দী গান পিরিয়ড শুরু হবে। ওয়াজ পিরিয়ডের আগে কোরআন তেলাওয়াত পিরিয়ড হয়েছে কিনা জানি না।

বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

অকারণ দৈর্ঘ্য

খুবই আশ্চর্য ব্যাপার!

ভারী বর্ষণে ঢাকা শহরের বেশ কিছু এলাকা গতকাল পানির নিচে তলিয়ে গিয়েছিল বলে আমরা অসাধারণ ও 'ঐতিহাসিক' কিছু ছবি পেয়েছি এবং এই ছবিগুলো নিয়ে আমরা নানারকম ব্যঙ্গ করে যাচ্ছি যা আবারও প্রমাণ করতে পারছে জাতি হিসেবে আমরা খুবই রসিক; কিন্তু আক্ষেপের বিষয় হল এই জলাবদ্ধতা আমাদেরকে এখন পর্যন্ত উপলব্ধি করাতে পারল না যে এই জলাবদ্ধতার পিছনে রয়েছে আমার এবং আমাদের দীর্ঘদিনের 'আন্তরিক' অবদান, কারণ এই আমরাই দোকান থেকে পণ্য কিনে আনি নিষিদ্ধ পলিথিনে করে এবং আমাদের ব্যবহৃত পলিথিন-প্লাস্টিকের বর্জ্যগুলো আমরাই নির্দ্বিধায় ছুড়ে ফেলি খোলা রাস্তায়, ড্রেনে, পাশের খোলা প্লটে যা একসময় আটকে দেয় আমাদের এই দ্বিতীয় বসবাস অযোগ্য নিকৃষ্ট শহরের পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা এবং জমে যাওয়া বৃষ্টির পানিতে আমাদের কোমর ডুবে যায় কিন্তু তারপরও আমাদের বোধদয় হয় না কারণ সম্ভবত আমাদের নাক এখনো পানি থেকে ঢের উচুতে এবং নাক ডুবে না যাওয়া পর্যন্ত আমাদের বোধ জাগ্রত হয় না এমনকি আমি নিজেও সেই মানুষদেরই একজন যার নাক বেঁচে থাকার কারণে স্ট্যাটাস প্রসবকরামাত্র আমিও ভুলে যাবো এবং আমার হাতের খালি বিস্কুটের প্যাকেটটি জানালা দিয়ে ফেলে দিয়ে সদ্য প্রসবকৃত স্ট্যাটাসের লাইক গুনতে গুনতে মনে মনে ভাববো - ভাগ্যিস, পানি জমেছিল, নাহয় এই দীর্ঘ বাক্যের স্ট্যাটাসটা কি প্রসব করা সম্ভব হত?

বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

কলকাতার নায়কের বাংলাদেশী নায়িকা

44

 

দেশের অখাদ্য নায়িকারা তাদের সর্বস্ব দিয়ে একটা বড় টাকা ওয়ালা প্রডিউছার জোগাড় করে , বায়না একটাই, তুই যেমনে পারিস যে ভাবে পারিস সব নিয়ে নে ভাই , কোলকাতার যে কোন একটা নায়ক আমার ফিল্মটাতে চাই। (সৈকত নাসির)

উপর্যুক্ত মন্তব্যটি করেছেন নবীন কিন্তু দুরন্ত সম্ভাবনাময়ী চলচ্চিত্র পরিচালক সৈকত নাসির। জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এবং তারিক আনাম খান, মাহিয়া মাহি ও শিপনকে নিয়ে তিনি বহুদিন পর একটি রাজনৈতিক গল্পসমৃদ্ধ চলচ্চিত্র দেশা দ্য লিডার নির্মান করে আলোচনায় এসেছেন। বর্তমানে তার পরবর্তী সিনেমা পুলিশগিরি নির্মান নিয়ে ব্যস্ত আছেন। ব্যস্ত আছেন পুলিশগিরির পরের সিনেমা নির্মানের প্রস্তুতি নিয়েও। এমন সময় তিনি এ মন্তব্য করেছেন যখন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে কলকাতার নায়কদের আনাগোনা বেড়েছে, প্রতিটি ছবিতে না হলেও এই মুহুর্তে গোটা দশেক চলচ্চিত্রে কলকাতার অভিনেতারা নায়ক হিসেবে অভিনয় করছেন বা করতে যাচ্ছেন। সৈকত নাসিরের মন্তব্যটি চলচ্চিত্রের দৈন্যদশাকে তুলে ধরার জন্য যথেষ্ট।