শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১০

হোটেল রূপসী বাংলার জন্য প্রার্থনা

দীর্ঘ ১০ মাস হোটেল রূপসী বাংলার হাই স্পিড ইন্টারনেট ব্যবহার করেছি, আড়াই ঘন্টায় একটা করে সিনেমা নামিয়েছি, ব্লগিং করেছি, সারাদিন ফেসবুক পাহাড়া দিয়েছি - সম্পূর্ন বিনা পয়সায়। আজ বাধ্য হয়ে এই অমূল্য সেবা পরিত্যাগ করতে হচ্ছে। আমি দু:খ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে হোটেল রূপসী বাংলা কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ দিতে চাই, এবং অনুরোধ করতে চাই, তাদের নেটওয়ার্ক যেন আরেকটু শক্তিশালী করে - তাহলে নতুন বাসায় গিয়েও আমি ফ্রি-তে হাই স্পীড ইন্টারনেট করতে পারবো ইনশাল্লাহ ;)

বৃহস্পতিবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০১০

লো বাজেট ফিল্মমেকারদের জন্য আদর্শ হতে পারে Christopher Nolan এর সিনেমা "Following"


সিনেমা দেখেন কিন্তু ক্রিস্টোফার নোলানের নাম শুনেন নাই দ্য ডার্ক নাইট আর ইনসেপশনের মতো সিনেমা মুক্তি পাবার পরে এমন একটা মুভি দর্শক খুজতে গোরস্থানে যেতে হবে নির্ঘাত। 'ফলোয়িং' নোলানের ‌‌‌পরিচালিত প্রথম ফিচার ফিল্ম। ৪০ বছর বয়সী এই পরিচালক এখন বিশাল বাজেটের সিনেমা নির্মান করছেন, অথচ এই ফলোয়িং একটি খুবই লো-বাজেট ফিল্ম।

একজন লেখক হতে আগ্রহী যুবক তার প্রথম উপন্যাসেই চমক দেখিয়ে দিতে চায়‍‌‌‌ আর তাই তার গল্পের চরিত্রের খোজে মানুষের পিছু নে‌‌য়‍। একটাই শর্ত মেনে চলে‌‌ সে‌‌‌‌‌‌‌, এক ব্যক্তিকে দ্বিতীয়বার পিছু নেন না। কিন্তু এই শর্ত ভাঙ্গে‌ নিজেই, কালো স্যুট পড়া এক ভদ্রলোকের পেছনে ছোটে‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌, একবার, দুইবার, বারবার। একদিন, সেই ভদ্রলোকই তাকে পাকড়াও করে এবং জানা যায়, সে একজন চোর। মানুষের ঘরে অবৈধ উপায়ে প্রবেশ করে, কিছু জিনিসপত্র নিয়ে যায় যেগুলো খুব গুরুত্বপূর্ন কিছু নয়। লিখতে সহায়ক হবে এই আশায় দুজনে দল বেধে লেগে ‌‌গেলো‌ চুরি‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌ করতে। কিন্তু দেখতে দেখতে ঝামেলায় জড়িয়ে গেলো‌‌‌ লেখক হতে চাওয়া যুবকটি। সে কি অভিজ্ঞতা অর্জন করছে, নাকি কারও খেলার গুটিতে পরি‌ণত হয়েছে?

বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১০

The Ghost Writer: আন্তর্জাতিক রাজনীতির অন্তরালের গল্প (স্পয়লার অ্যালার্ট)

রোমান পোলানস্কির ২০১০ সালের সাফল্যমন্ডিত পলিটিক্যাল ড্রামা "দ্য ঘোস্ট রাইটার"। রোমান পোলানস্কি বিভিন্ন কারনে আলোচিত, সমালোচিত।১৯৬২ সালে নাইফ ইন দ্যা ওয়াটার সিনেমার মাধ্যমে পূর্নদৈঘ্য সিনেমার জগতে যাত্রা শুরু করেছিলেন এবং প্রথম সিনেমাতেই মুণ্সিয়ানা দেখিয়েছেন। তবে দর্শক বোধহয় তার "দ্য পিয়ানিস্ট" সিনেমার কারণেই বেশী চিনেন। আবার নানাবিধ কারনে বিশেষত: সেক্সুয়াল স্ক্যান্ডাল তাকে বেশ সমালোচিত করেছে বিভিন্ন সময়। "দ্য ঘোস্ট রাইটার" এর প্রিমিয়ারের সময়ও তিনি কারাগারে বন্দী অবস্থায় ছিলেন।

বুধবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১০

The Butterfly Effect: অতীতের সংশোধন

২০০৪ সালে দ্য বাটারফ্লাই ইফেক্ট সিনেমাটা মুক্তি পায়। সাইকোলজিক্যাল ড্রামা, থ্রিলার। পরিচালক এরিক ব্রেস এবং জে ম্যাকি গ্রাবার। বাটারফ্লাই ইফেক্ট একটা বিশেষ টার্ম। বলা হয়ে থাকে একটা প্রজাপতির ছোট্ট দুটি পাখার দ্রুত নড়াচড়ার ফলে যে বাতাস সৃষ্টি হয় তা দূরে কোথাও একটা ঝড় তৈরী করে। সায়েন্টিফিক ব্যাখ্যা আছে এর পেছনে, সে দিকে যাচ্ছি না। সোজা কথায়, কোন ঘটনার সামান্য একটি দিক পরিবর্তন করে দিলে পুরো ফলাফলই পাল্টে যেতে পারে - এই থিম নিয়েই সিনেমাটা।

Life In a Metro: শহুরে কাব্য

সিনেমা না দেখেও সিনেমা মনে রাখা যায় - লাইফ ইন আ মেট্রো আমার জীবনে সবচে' বড় উদাহরণ। এই সিনেমাটা না দেখলেও মনে রাখতাম, একটাই কারণ, প্রিয় গায়ক জেমস এই সিনেমায় হিন্দীতে গান গেয়েছেন, তার সেই চিরাচরিত স্টাইলে ঝাকড়া চুল ঝুলিয়ে মাতাল ভঙ্গিতে মাথা দুলিয়েছেন, সর্বোপরি এই সিনেমার একটি অংশ হয়েছেন। সিনেমাটা ভুলে যাওয়া আরও কষ্টকর হয়ে গেল দেখার পর। ঢাকা শহরের এত যন্ত্রনা, যানযট, দুর্বিষহ জীবন, নোংড়া জীবন পদ্ধতি ইত্যাদি ইত্যাদি সত্ত্বেও আপনি ঢাকা শহরে কেন বাস করছেন - এই প্রশ্নের জবাবটা বোধহয় পাওয়া যাবে লাইফ ইন আ মেট্রো তে।