রবিবার, ৩১ মে, ২০০৯

ভারত-বিদ্বেষ!

See Bangladesh, Like Bangladesh, Love Bangladesh, Marry Bangladesh ... ... ..., Fuck INDIA !

Angels and Demons: সিনেমার বাইরে


গত ১৫ ই মে সারা বিশ্বে আলোচিত মুভি অ্যাঞ্জেলস এন্ড ডেমনস যার জন্য বহুদিন ধরে দর্শকরা অপেক্ষা করে রয়েছে, মুক্তি পেয়েছে এবং যথারীতি আগের মুভি দ্যা দা ভিঞ্চি কোড এর মত আলোচনা এবং সমালোচনার ঝড় তুলেছে। এর মাঝেই ইন্টারনেটের কল্যানে বাংলাদেশে চলে এসেছে মুভিটি, অনেকেই দেখে ফেলেছেন কেউ কেউ দেখার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। পল্টনে মনি সিংহ ভবনের সামনে ফুটপাতে দশটাকায় বিক্রি হচ্ছে সেটাও দেখে এলাম। ভালো উদ্যোগ।

বুধবার, ১৩ মে, ২০০৯

সামহোয়্যারইনব্লগে শততম পোস্টের তিনটি সিনেমা রিভিউ! (Ronin, Body of Lies, Atonement)

এটা আমার শততম পোস্ট!
সামহোয়্যারইনব্লগে লিখছি দশ মাস পাচ দিন। দশ মাস দশ দিন থেকে পাচ দিন কম - তাতে সমস্যা নেই, সিজারের এই যুগে বোধহয় খুব কম মাই দশ মাস দশ দিন সন্তানকে পেটে পুষে রাখেন, বেশির ভাগই সাড়ে আট মাসের পর নিয়ে আসেন সন্তানকে এই পৃথিবীতে। সে নিয়মের সবচেয়ে বড় ব্যাঘাত ঘটিয়ে আমি সামোয়ারে ফাস্ট পাতায় এক্সেস পাই মাত্র তিন দিনে। এই দশ মাস পাচ দিনে পোস্ট লিখলাম মাত্র ১০০ টা, মন্তব্য করেছি ৭৮৯ টি (আমি বোধহয় বেশ কৃপণ, এক্ষেত্রে), পেয়েছি ১২৫৬ টি আর ব্লগ দেখা হয়েছে মোট ১৮৫০৪ বার। আমি সন্তুষ্ট। আমার জগত একান্তই আমার।


শততম পোস্ট উপলক্ষে তাই তিনটি মুভির রিভিউ!

বুধবার, ৬ মে, ২০০৯

One flew over the Cuckoo's Nest


সিনেমাটা ১৯৭৫ সালের। নাম শুনতে শুনতে কান ঝালাপালা।
ওয়ান ফ্লিউ ওভার দ্য কুক্কুস নেস্ট- জ্যাক নিকলসনের অভিনীত মুভি। মাইলোস ফোরম্যানের পরিচালনা।
সিনেমার কাহিনী এক মানসিক হাসপাতালকে ঘিরে। ম্যাকমারফি ওরফে নিকলসন একজন মানসিক রোগী হিসেবে চিকিৎসার জন্য আসে অথচ তার কথাবার্তা কিংবা আচরনে কোন অসুস্থতার ছাপ নেই। অথচ সে অসুস্থ। এখান থেকে যদি প্রমাণ করা যায় সে অসুস্থ তবে পাওনা শাস্তি ভোগ করতে হবে তাকে। হাসপাতালের মানসিক রোগীদের নিয়ে তার কান্ডকারখানা- সে এক অসাধারন মুভি।

Scent of Woman: আল পাচিনোর মুভি


আল পাচিনোর অভিনয় নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই, তবে তার অন্যতম বেস্ট অভিনয় দেখার জন্য 'সেন্ট অব ওমেন;' দেখা যেতে পারে।


কাহিনীটা যদিও আল পাচিনো অভিনিত কর্নেল স্লেড সম্পর্কিত, এর সাথে জড়িয়ে আছে প্রিপেরটরী স্কুলের ছাত্র চার্লি সিমস (ক্রিস ও'ডোনেল অভিনিত)। স্কলারশিপের টাকায় পড়াশোনা করা ছাত্র চার্লি কর্নেল স্লেডের দেখাশোনা করার দায়িত্ব পায় উইকএন্ডে, উদ্দেশ্য উপার্জিত টাকা দিয়ে সে ক্রিসমাসের ছুটিতে বাসায় যেতে পারবে। কর্নেল স্লেড একজন রিটায়ার্ড অন্ধ আর্মি অফিসার, আপাত দৃষ্টিতে রগচটা, খেয়ালী । অথচ উইকএন্ডের আগেই স্কুলের প্রিন্সিপালের নতুন জাগুয়ারের উপর রং ঢেলে অপমানিত করার জন্য দায়ী ছেলেদের নাম প্রকাশ না করার অভিযোগে শাস্তি পাওনা হয় চার্লির।

তিনটি ওয়েষ্টার্ন মুভি (Dead Man, Unforgiven, 3.10 to Yuma)


একটু ওয়েস্টার্ন জ্বরে আছি। কৈশোরে সেবা প্রকাশনীর ওয়েস্টার্ন পড়েছি এক বসায়, কল্পনায় ঘুরে বেরিয়েছি নায়কের সাথে যে কিনা কোমরে গান ঝুলায়, আর গুলি করে হাতে ধরা পয়সা ফুটো করে দিতে পারে। এই ভালোবাসা এখনো শেষ হয়নি, বই থেকে মুভিতে টার্ন করেছে। সবসময়ই ওয়েস্টার্ন দেখার চেষ্টা করি, গত কয়েকদিন ও টানা তিনটা মুভি দেখলাম।


Dead Man (১৯৯৫)


জিম জারমুশের পরিচালনায় এই মুভিতে জনি ডেপ অভিনয় করেছে। ওয়েস্টার্ন মুভিগুলোর তুলনায় একটু ভিন্ন রকমের, কেমন যেন পাগলাটে। সমালোচকরা একে পোস্ট ওয়েস্টার্ন মুভি বলে আখ্যায়িত করেছেন।

সত্যজিত এবং পথের পাঁচালি



আজ ২৩শে এপ্রিল, বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্রকার সত্যাজিত রায়ের ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী।

জীবদ্দশায় সত্যাজিত মোট ৩৬ টি মুভি বানিয়েছিলেন, ছোট বড় মিলিয়ে। এর মাঝে তার ছ'টি ডকুমেন্টারীও আছে যার একটি তার বাবা সুকুমার রায় এবং অন্যটি রবি ঠাকুরকে নিয়ে। এই ৩৬টি মুভির সাথে কোন খবরাখবর না রাখলেও বাঙ্গালী মাত্র তার 'পথের পাচালি' সিনেমার নামটি জানেন। যারা অনেক নাম এবং খ্যাতি শুনে মুভিটি দেখতে বসেন, তাদের অনেকেই হতাশ হন, বিশেষ করে আমাদের মতো মানুষরা যারা হলিউড এবং বলিউডের সিনেমার মারামারি আর গতিতে ভীষণভাবে আসক্ত। কি কারনে এই সিনেমার এতো নাম ডাক, সে নিয়ে বিশাল এক প্রশ্নবোধক চিহ্ন নিজেকে ঘিরে রাখে।