লার্ণিং ফেসবুক - ১

পাবলিকে স্যরি, লাভিউ বা হেটিউ বলার একটা ইমপ্যাক্ট আছে - এটা ম্যক্সিমাইজ হয়ে যায়। ফেসবুকে জনগণের সামনে দেয়া এ ধরনের ব্যক্তিগত স্ট্যাটাসের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। বলা বাহুল্য, এ ধরনের স্ট্যাটাস নির্দিষ্ট এক বা একাধিক ব্যক্তির উদ্দেশ্যে দেয়া হয়, আমজনতার জন্য না। কিন্তু কখনো কখনো পাবলিকে দেয়া ব্যক্তিগত স্ট্যাটাসে পাবলিকের উড়াধুরা কমেন্ট সেই নির্দিষ্ট একজন মানুষটিকেও বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে পারে।

যে কোন ধরনের ব্যক্তিগত স্ট্যাটাস - স্যরি, লাভিউ বা হেটিউ - দেয়ার সময় পাবলিক ভিউ সেটিংস থেকে কাস্টম করে যাকে উদ্দেশ্য করে দিতে চাচ্ছেন তাকে সিলেক্ট করে দিতে পারেন - সে ছাড়া আর কেউ দেখবে না, জানবেও না। প্রয়োজনে তাকে ট্যাগও করে দিতে পারেন সেই স্ট্যাটাসে। নির্দিষ্ট সময় বাদে, যখন সেই মানুষটি লাইক দিয়ে, অথবা অন্য কোনভাবে, স্ট্যাটাস দেখা নিশ্চিত করবে তখন স্ট্যাটাসটি ডিলিট করে দিতে পারেন। অথবা সতর্কতা হিসেবে আপনার টাইমলাইন থেকে হাইড করে দিতে পারেন, পাবলিকের নাকে গন্ধও পৌছাবে না, নাক গলানোর সুযোগ তো থাকবেই না।

অন্যথায়, বিব্রতকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়ে যাওয়ার পর, পাবলিকে শুধু স্যরি না পায়ে ধরলেও সমাধান না হতে পারে। বেস্টোব্লাক!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ