সকাল বেলায় এক ছোটভাই জানতে চাইল - ভাই বাজারে কি নতুন কোন ভারতীয় জুস টুস আসবে নাকি? ব্যবসা বাণিজ্য নিয়া আমি অজ্ঞান, উত্তর না দিয়া প্রশ্নের উদ্দেশ্য জানতে চাইলাম। উত্তর আসলো, প্রাণের বোতলে নাকি কি সব পাওয়া যাইতেছে। এইবার বুঝলাম। আমি এত অজ্ঞান না যে জানবো না প্রাণের প্রোডাক্ট ভারতেও বিক্রি হয়।

বেলা আরেকটু বাড়লে জানা গেল বাংলাদেশে ভারতীয় ছবি প্রদর্শনের চেষ্টায় গোপন বৈঠক হয়া গেল। এর আগের নানা ইস্যুতে নানারকম বৈঠক গোপনে হয় নাই ঠিক, তবে দেশ নানা ইস্যু নিয়া বিজি ছিল, পেছন দিয়া হাতি গেছে, টের পায় নাই।

এফডিসির লোকগুলাও বেয়াক্কল। ফিকশন ফিল্ম বানায়া দেশোদ্ধার করতেছে! ব্যাটা বেওকুফ!! সবতে মিলা ডকিউমেন্টারি বানা - বিশ বছর পর অন্তত সেইটা দেখায়া বলতে পারবি - আমাদের সুন্দরবন ছিল, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি ছিল, গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রি ছিল, পল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রি ছিল, জামদানী ছিল, বেনারসী ছিল, অমুক ছিল, তমুক ছিল - এখন শুধু ডকিউমেন্টারী আছে।

এফডিসি-র ফিল্মমেকারদের তখনকার জেনারেশন 'স্টপ জেনোসাইড' নির্মাতা জহির রায়হানের মত শ্রদ্ধা করবে এই স্ট্যাটাসে লিখা দিলাম - যার বিশ্বাস হয় না সে স্ক্রিনশট রাখুক। বেস্ট অব লাক।