[caption id="attachment_3414" align="aligncenter" width="960"] ইতিহাসে স্থান পাওয়া শেষ দৃশ্য[/caption]

পল নিউম্যান এর আরেকটা হাস্যমুখের সিনেমা দেখেছিলাম, কুল হ্যান্ড লিউক, অসাধারণ সিনেমা আর চমৎকার সেই হাসি। সেই একই হাসি আবারও দেখলাম বুচ ক্যাসাডি এন্ড দ্য সান্ডেন্স কিড সিনেমাতে। আমেরিকান ফিল্ম ইন্সটিটিউটের করা সেরা দশটি ওয়েস্টার্ন মুভির মধ্যে অন্যতম এই সিনেমা, আসলে ঠিক এ কারনেই দেখা।
মুভির সবচে' প্রধান ধারা আউটলদের কাহিনী নিয়েই এই সিনেমা। মজার ব্যাপার হলো, পশ্চিমের রুক্ষ প্রান্তরে একসময় সত্যিই এই বুচ ক্যাসাডি আর দ্য সানডেন্স কিড নামের দুজন কুখ্যাত আউটল, বিশেষত ট্রেন এবং ব্যাংক ডাকাত, ক্রমেই শান্তির দিকে এগিয়ে যাওয়া মানুষদের নিরাপত্তা হরণ করেছিল। ১৯৬৯ সালে মুক্তিপাওয়া এই সিনেমায় পল নিউম্যান বুচ চরিত্রে এবং রবার্ট রেডফোর্ড সানডেন্স কিড চরিত্রে অভিনয় করেছে।


ফাস্ট ড্র, পোকার খেলা, আউটল, পসি, ট্র্যাকার, ক্যানিয়ন ইত্যাদি শব্দগুলো তাদের কাছে খুবই পরিচিত যারা ওয়েস্টার্ন বই এবং সিনেমার সাথে সম্পর্ক রাখেন কিংবা রাখতেন। এই আউটলকে ধাওয়া করা এবং পলায়ন কি জিনিস তা দেখার জন্য সিনেমাটি আদর্শ। ছয় সদস্যের বন্দুকধারী একটি দল পিছু তাড়া করে বুচ এবং সানেডেন্স এর। পালাতে শেষ পর্যন্ত যেতে হয় বলিভিয়ায়, সেখানে ভিন্ন কাহিনী।

[caption id="attachment_3416" align="aligncenter" width="640"] অসাধারণ রোমান্টিক সেই গানটি[/caption]

ছবিটির অসাধারণ লোকেশন আর ফটোগ্রাফি চোখকে পর্দার সাথে আটকে রাখতে সাহায্য করেছে। এর সাথে রয়েছে গল্পের দুরন্ত গতি। অসাধারন একটি রোমান্টিক গানও রয়েছে মুভিটিতে, চরিত্রায়নে বুচ এবং সানডেন্সের প্রেমিকা এবং পরবর্তীতে পলায়নে সহায়তাকারী সুন্দরী এট্টা। "রেইনড্রপস কিপ ফলিং অন মাই হেড" শিরোনামের চমৎকার এই গানটি '৭০ এর অস্কার জিতেছিল, সাথে আরও তিনটি ক্যাটাগরিতে।