মুভি – The Sixth Sense

দ্যা সিক্সথ সেন্স । ডিরেক্টর এম. নাইট শ্যামালান ভালোই দেখিয়েছেন তার এই মুভিতে। ব্রুস উইলিসের কুল অভিনয়টা বস্ ।

কাহিনীটা কিন্তু আধাভৌতিক। কোল নামের এক ছেলে ভয়াবহ এক সমস্যায় আক্রান্ত। সমস্যাটা মানসিক নাকি সত্যি- তার দ্বন্দ্ব মুভির আদ্দেকটা জুড়ে। ৯ বছর বয়সি এক ছেলে কেন এত চুপচাপ, কারও সাথে মিশে না, কেন একা একা খেলে, কি তার সেই সিক্রেট – সব প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়েছে এ মুভিতে।
ব্রুসের চরিত্র ম্যালকম নামের এক চাইল্ড স্পেশালিস্টের যে কিনা সবচাইতে গুরুত্ব দেয় বাচ্চাদের বিভিন্ন ধরনের মানসিক সমস্যার সমাধান করাকে। তার বউ এ কারনে তার উপর দুঃখিত। কিন্তু কোলের সমস্যাকে গুরুত্ব না দিয়ে পারেনি ম্যালকম।
কোল তার সিক্রেটটা বলেছিল ম্যালকমকে- সে মৃত ব্যাক্তিদের দেখতে পারে। তারা তার সাথে কথা বলে, কোলকে দিয়ে কিছু কাজ করিয়ে নিতে চায়, কিন্তু ভীতু কোল বুঝতে পারে না বলে তারা কোলকে আহত করতে দ্বিধা করে না। ‘মৃতরা জানে না যে তারা মৃত, তাই সবার মাঝেই তারা ঘুরে বেড়ায়। তারা যোগাযোগ করে তাদের সাথে যাদের সাথে তারা যোগাযোগের ইচ্ছা করে।’ম্যালকম কোলের কথা বিশ্বাস করে, তারপরেই সমস্যার সমাধান হতে শুরু করে। কোল এবং ম্যালকম এক কিশোরী মেয়ের মৃত্যু রহস্য ভেদ করে। কোলের ভয় কেটে যেতে থাকে, সে স্বাভাবিক হয়ে উঠতে থাকে,কিন্তু ম্যালকমের বউ তার অবহেলায় নতুন একজনের সাথে সখ্যতা গড়ে তোলে।
কোল তার এই সমস্যার সমাধান করে দেয়। তার দেখানো পদ্ধতি অনুসরন করতে গিয়েই ম্যালকম রূপী ব্রুস আবিস্কার করে আসলে সে নিজেই একজন মৃত ব্যক্তি। মুভির শুরুতেই তার মৃত্যু ঘটনা দেখানো হয়, কিন্তু ম্যালকম আবিস্কার করে শেষ পর্যায়ে এসে। আসলে মৃত ম্যালকম এসেছিল কোলকে সহায়তা করার জন্য এবং তার স্ত্রীকে বলতে যে সে তাকে সত্যিই ভালোবাসে।কাজ শেষ, সুতরাং তার যাওয়ার সময় হয়ে গেল।

ব্রুসের অনবদ্য অভিনয় ছাড়াও কোলের চরিত্রে হ্যালি অসাধারন অভিনয় করেছে। বিশেষ করে শেষে মা-ছেলের কথোপকথন মনে থাকবে।

যারা সাসপেন্স এবং হরর ধর্মী (কিন্তু ফ্রিকি নয়)মুভি দেখতে চান, তাগদর জন্য দ্যা সিক্সথ সেন্স মাস্ট সি মুভি!

About দারাশিকো

নাজমুল হাসান দারাশিকো। প্রতিষ্ঠাতা ও কোঅর্ডিনেটর, বাংলা মুভি ডেটাবেজ (বিএমডিবি)। যোগাযোগ - [email protected]

View all posts by দারাশিকো →

4 Comments on “মুভি – The Sixth Sense”

  1. AAMAR FABOURITE 1 TA MOVIE !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!
    TWESTED MOVIE DEIKHTE KHUB EE VALO LAGE ………………….
    TA AAPNAR KAMON LAGLO SETA TO BOLLEN NA !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!???????????????? 😀

  2. আপনার রিভিউ পড়ে মুভিটি দেখেছি,আগে থেকেই দেখার ইচ্ছে ছিল। চমৎকার মুভি কিন্তু টুইস্টগুলি তো আপনি আগেই বলে দিয়েছেন তাই ওই মজাটা পাইনি।
    আপনার প্রতি একটা রিকুয়েস্ট- রিভিউ লিখলে প্লিজ এইভাবে স্পয়লার লিখবেন না,তাতে টুইস্ট নষ্ট হয়ে যায়। আশা করি কথাটা পজিটিভভাবেই নিবেন।
    অনেক ধন্যবাদ।

    1. প্রিয় গুলজার আহমেদ, আপনাকে স্বাগত দারাশিকো’র ব্লগে এবং অসংখ্য ধন্যবাদ আপনার গঠনমূলক মন্তব্যের কারণে। ২০০৯ সালে লিখেছিলাম এই পোস্ট – টুইস্ট বলে না দেয়ার নিয়মটি তখনো আত্মস্থ করতে পারি নি, তাই এই ত্রুটি রয়ে গেছে। আপনার মন্তব্য নতুন করে পোস্টটি এডিট করতে উদ্বুদ্ধ করছে – আশা করছি শীঘ্রই স্পয়লার অংশটুকু দূর করে ফেলবো।
      ভালো থাকুন। ঈদ মোবারক 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুক মন্তব্য